পুকুরে মাছ চাষ, পুকুর পাড়ে সবজি চাষ- কিন্তু শেষ পর্যন্ত হলটা কী?

দুর্গাপুর দর্পণ, কাঁকসা, ২২ সেপ্টেম্বর ২০২৩: সেচের সুবিধার জন্য কৃষি সেচ বিভাগের জল সম্পদ উন্নয়ন ও অনুসন্ধান দফতরের উদ্যোগে পশ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) কাঁকসার সরস্বতীগঞ্জে জলাশয় খনন করা হয়েছে। সেই কাজে ঠিকাদারদের বিরুদ্ধে চূড়ান্ত গাফিলতির অভিযোগ উঠেছে। কাজের খরচ উল্লেখ না থাকায় দুর্নীতির অভিযোগ তুলেছেন এলাকার চাষীরা।

দেখুন ভিডিও

জানা গিয়েছে, ২০২২-২৩ অর্থবর্ষে কাঁকসার সরস্বতী গঞ্জের চাষীদের সেচের সুবিধার জন্য বাঁধ সংস্কার এবং জলাশয় খনন করা হয়। কথা ছিল, জলাশয়ের চারিদিকে সবজি চাষ করা হবে। জলাশয়ে হবে মাছ চাষ। পাশাপাশি জলাশয়ের জল চাষের কাজেও ব্যবহার করা হবে। চাষীদের অভিযোগ, জলাশয়ের পাড় সঠিকভাবে বাঁধানো হয়নি। ফলে বাঁধের মাটি ধসে যাচ্ছে। বাঁধের রাস্তাও চলাচলের অযোগ্য হয়ে পড়েছে।

আরও পড়ুন- হাওড়া-পাটনা বন্দে ভারত এক্সপ্রেসের উদ্বোধনের দিন ঠিক হয়ে গেল

চাষীদের অভিযোগ, জলাশয় খনন এবং বাঁধ সংস্কারের জন্য কত টাকা ব্যয় হয়েছে তার কোথাও উল্লেখ নেই। বিজেপির সাংগঠনিক জেলা সম্পাদক অভিজিৎ দত্ত বলেন, ‘‘আসলে কত টাকা বরাদ্দ হয়েছে আর কত টাকা খরচ হয়েছে তা প্রকাশ করার সাহস তৃণমূলের নেতাদের নেই। কারণ, ওই টাকায় তাঁদের পকেট ভরেছে।’’ অভিযোগ অস্বীকার করে কাঁকসা পঞ্চায়েত সমিতির সভাপতি ভবানী ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘গাফিলতির অভিযোগ খতিয়ে দেখা হবে। সংশ্লিষ্ট দফতরের সঙ্গে কথা বলে কত টাকা খরচ হয়েছে তাও তুলে ধরার ব্যবস্থা করা হবে। বিজেপিকে এসব নিয়ে ভাবতে হবে না।’’ (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

 

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt