ভারতে চিকিৎসা করাতে এসে ‘খুন’ বাংলাদেশের সাংসদ! কী ঘটেছিল ওই ৮দিনে?

ভারতে চিকিৎসা করাতে এসে ৮ দিন ধরে নিখোঁজ ছিলেন বাংলাদেশের শাসকদল আওয়ামি লিগের ৩ বারের সাংসদ আনোয়ার উল আজিম

দুর্গাপুর দর্পণ ডেস্ক, ২২ মে ২০২৪: ভারতে মাঝে মাঝেই চিকিৎসা করাতে আসতেন বাংলাদেশের (Bangladesh) ঝিনাইদহের সাংসদ আনোয়ার উল আজিম (Anwarul Ul Azim)। সম্প্রতি ফের তিনি এদেশে এসেছিলেন সেই একই কারণে। তারপর আচমকা নিখোঁজ হয়ে যান তিনি। ৮ দিন পরে তাঁর দেহ উদ্ধার হল নিউটাউন থেকে। তদন্তে নেমেছে পুলিশ।

বিবিসির খবর, গত ১২ মে তিনি কলকাতায় এসেছিলেন। উঠেছিলেন কলকাতার বরাহনগর এলাকার সিঁথিতে বন্ধু গোপাল বিশ্বাসের বাড়িতে। ১৩ মে দুপুর ১টা ৪১ নাগাদ স্নায়ুরোগ বিশেষজ্ঞকে দেখাবেন বলে তাঁর বাড়ি থেকে বেরিয়ে সামান্য দূরে বিধান পার্ক এলাকা থেকে ভাড়া করা গাড়িতে ওঠেন। বলেছিলেন, সন্ধ্যায় ফিরে আসবেন। তারপর আর আসেননি। 

( Dr. BC Roy Engineering College & Group of institutions । পূর্ব ভারতের সেরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। যোগাযোগ- 933927844, 9832131164, 9932245570, 9434250472)

পরে তাঁর মোবাইল ফোন থেকে হোয়াটস্অ্যাপ মেসেজ আসে গোপালের কাছে, যে তিনি বিশেষ কাজে দিল্লি চলে যাচ্ছেন। পৌঁছে ফোন করবেন। তাঁকে ফোন করার দরকার নেই। ১৫ মে গোপালের কাছে আর একটি হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ আসে। তাতে লেখা ছিল, তিনি দিল্লি পৌঁছেছেন এবং তাঁর সঙ্গে ‘ভিআইপিরা’ আছেন, তাই তাঁকে যেন ফোন না করা হয়।

এরপর ১৭ মে সাংসদের মেয়ে গোপালকে ফোন করে জানান, তিনি বাবার সঙ্গে কিছুতেই যোগাযোগ করতে পারছেন না। ১৮ মে বরাহনগর থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেন গোপাল। ইতিমধ্যে বাংলাদেশের সরকার যোগাযোগ করে দিল্লি ও কলকাতায় বাংলাদেশের দূতাবাসের সঙ্গে। পুলিশ তদন্তে নামে। মোবাইল লোকেশন অনুযায়ী, বন্ধুর বাড়ি থেকে বের হওয়ার পর তাঁর মোবাইলের লোকেশন একবার পাওয়া গিয়েছিল নিউমার্কেট এলাকায়। এরপর ১৭ মে তাঁর ফোন কিছুক্ষণের জন্য সচল ছিল বিহারের কোনও জায়গায়।

শেষ পর্যন্ত বুধবার তাঁর দেহ উদ্ধার হয় নিউটাউনের বিলাসবহুল আবাসন থেকে। একটি সূত্রের খবর, নিউ টাউনের একটি বিলাসবহুল আবাসনে ফ্ল্যাট ভাড়া নেন তিনি। সেখানে এক মহিলা সহ কয়েকজন ছিলেন তাঁর সঙ্গে। কিন্তু কে বা কারা তাঁকে খুন করল, খুনের কারণ কী, তা পুলিশের কাছে স্পষ্ট নয়। আবাসনের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারীরা। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt