দুর্গাপুরে যারা পুরসভা চালায় তারা ‘অপদার্থ’? এ কী বললেন মুখ্যমন্ত্রী? ব্যাপক চাঞ্চল্য শহরে

দুর্গাপুর দর্পণ, ২৭ জুন ২০২৪: তৃণমূলের শ্রমিক সংগঠন আইএনটিটিইউসির বিরুদ্ধে পশ্চিম বর্ধমান জেলার (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরে তোলাবাজির অভিযোগ উঠেছে বিভিন্ন সময়ে। মুখ্যমন্ত্রী দুর্গাপুরে এসে প্রশাসনিক বৈঠকে এ বিষয়ে শ্রমিক নেতৃত্বকে সতর্ক করে গিয়েছেন। বৃহস্পতিবার নবান্নের সভাঘর থেকে ফের সরব হলেন তিনি। এদিন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, জুলুম চলছে দুর্গাপুরে, কারখানায় চাঁদা তোলার। যারা যারা চাঁদা তুলছে, তাদের হাতগুলো একটু বন্ধ করো। লোকাল পুলিশকে কড়া ব্যবস্থা নিতে হবে। পুলিশ নড়বড়ে হলে চলবে না।

একই সঙ্গে এদিন মুখ্যমন্ত্রী দুর্গাপুর পুরসভার কাজ নিয়েও তীব্র কটাক্ষ করেছেন। তিনি বলেন, “দুর্গাপুরে ছয় জন আছে। সবাই অপদার্থ। একজন ছাড়া। বদলে নতুনদের নিতে হবে। ভালো লোক খোঁজো। পুলিশকে বলো ক্রস চেক করে নিতে। পুলিশ অনেক সময় নেতাদের কথায় উল্টোপাল্টা ক্রস চেক করে তথ্য দেয়। ওসব চলবে না। সঠিক তথ্য চাই।”

( রাজেন্দ্র একাডেমি ফর টিচার্স এডুকেশন। NAAC স্বীকৃত শিক্ষক প্রশিক্ষণের সেরা প্রতিষ্ঠান। যোগাযোগ- 8170031466)

এদিন মুখ্যমন্ত্রী একই সঙ্গে আইএনটিটিইউসির তোলাবাজি ও পুরসভার প্রশাসকমণ্ডলীর বিরুদ্ধে কড়া বার্তা দেওয়ায় সরব হয়েছে বিজেপি। দলের বর্ধমান-দুর্গাপুর সাংগঠনিক জেলার সহ সভাপতি চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, আমরা বিরোধীরা যা বলি মুখ্যমন্ত্রীও তা বলছেন। তোলাবাজি তো আছেই, শ্রমিকদের কাছ থেকেও প্রতি মাসে কাটমানি খায় আইএনটিটিইউসি নেতারা। আর, পুরসভায় নির্বাচন না করলে পরিষেবা পাবে কী করে মানুষ? প্রশাসকমণ্ডলীকে অপদার্থ বলে আর কী হবে? (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt