পর পর মেয়ে হওয়ায় সদ্যজাতকে ফেলে দিলেন মা, চাঞ্চল্য দুর্গাপুরে

pix of mamc modern add আমাদের ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করে রাখুন বিভিন্ন আপডেট পাওয়ার জন্য।

দুর্গাপুরঃ বুধবার ভোর সাড়ে ৩ টা নাগাদ দুর্গাপুরের নিশানহাট বস্তির ঝুপড়িতে জন্ম নেয় এক শিশুকন্যা। কিছুক্ষণের মধ্যেই বস্তাবন্দী হয়ে তার ঠাঁই হয় পাশের মাঠের এক গর্তে। এই অমানবিক ঘটনায় হতবাক অনেকে।

পরিবারের কর্তা রিক্সা চালান। সন্ধ্যায় ভরপেট মদ খেয়ে ঘরে ঢোকেন। আগে তিনটি সন্তানের দুটি মেয়ে। বুধবার ভোরে তাঁর স্ত্রী জন্ম দেন চতুর্থ সন্তানের। স্থানীয় বাসিন্দাদের অভিযোগ, কন্যা সন্তান হওয়ায় সেই সদ্যজাতকে স্বাস্থ্যকেন্দ্রের পাশের মাঠের গর্তে ফেলে দিয়ে আসেন দম্পতি। প্রবল ঠান্ডার মধ্যে কয়েকঘন্টা পড়েছিল সদ্যজাত। বৃহস্পতিবার সকালে বাচ্চারা খেলতে গিয়ে কান্নার আওয়াজ পেয়ে গর্ত থেকে তাকে বের করে। এরপরেই পাড়ার বাসিন্দারা ধরে ফেলেন সবটা।

ওই দম্পতি প্রথমে ঘটনার কথা স্বীকার করতে চায়নি। পরে পুলিশ এলে ভয় পেয়ে সব মেনে নেয়। সবার কাছে হাতজোড় করে ক্ষমা চেয়ে নেন সদ্যজাতের বাবা। মা ও সদ্যজাতকে পাঠানো হয় দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে। ২০২০ সালের শেষদিনেও কন্যা সন্তানের প্রতি এমন চরম অবহেলার নিদর্শন দেখে অনেকেই সমালোচনা করেছেন। তবে দম্পতির বিরুদ্ধে কেউ অভিযোগ দায়ের না করায় বেঁচে গেলেন তাঁরা।

কে বলতে পারে, একদিন এই উদ্ধার হওয়া শিশুকন্যা গুলাবো সপেরার মতো বিখ্যাত হয়ে উঠবে না! গুলাবোকে জনজাতির নিয়ম মেনে চতুর্থ কন্যাসন্তান হওয়ায় পুঁতে দেওয়া হয়েছিল। সাত ঘন্টা মাটির নিচে ছিল সদ্যজাত গুলোবা। কিন্তু তাঁর বাবা-মা জেদ করে তাঁকে তুলে বড়ো করে তোলেন। এখন রাজস্থানি লোকনৃত্যের অন্যতম মুখ এই শিল্পী।

আরও পড়ুন- পথশিশুদের খাইয়ে জন্মদিন পালন করল অর্ক

Durgapur Darpan

খবর তো আছেই। সেই সঙ্গে শিক্ষা, সংস্কৃতি, স্বাস্থ্য, রান্না সহ আরও নানা কিছু। Durgapur Darpan আপনার নিজের মঞ্চ। যোগাযোগ- ই-মেইল- durgapurdarpan@gmail.com

Leave a Reply

Your email address will not be published.