পানাগড়ের পর এবার বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে গ্রেফতার নবদ্বীপের যুবক

দুর্গাপুর দর্পণ, ২৫ জুন ২০২৪: এদেশ থেকে বাংলাদেশ পালানোর সময় বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করেছে রাজ্য পুলিশের এসটিএফ। সোমবার রাতে এসটিএফ হানা দেয় উত্তর ২৪ পরগনার গাইঘাটায়। গাইঘাটা হয়ে ট্রেনে চেপে বাংলাদেশ পালানোর চেষ্টা করছিল নদিয়ার (Nadia) নবদ্বীপের মোল্লাপাড়ার বাসিন্দা বছর ২৭ এর হারেজ শেখ। তাকে গ্রেফতার করা হয়। 

এর আগে পশ্চিম বর্ধমান জেলার (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের কাঁকসার মীরে পাড়া থেকে শনিবার মহম্মদ হাবিবুল্লাহ নামে এক বছর ২১ এর যুবককে গ্রেফতার করা হয়েছিল বাংলাদেশের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের সঙ্গে যুক্ত থাকার অভিযোগে। কাঁকসা থানায় ম্যারাথন জেরার পরে রাজ্য পুলিশের এসটিএফ তাকে গ্রেফতার করে। দুর্গাপুর আদালতে তোলা হলে তাকে বিচারক ১৪ দিনের পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। এরপর তাকে কাঁকসা থানা থেকে কলকাতা নিয়ে চলে যায় এসটিএফ।

(The Mission Hospital. দেশের সেরা চতুর্থ হাসপাতাল এখন দুর্গাপুরে। যোগাযোগ- 8687500500 )

এসটিএফ সূত্রে খবর, মহম্মদ হাবিবুল্লাহকে জেরা করে বাংলাদেশের ‘আনসার আল ইসলাম’ নামের নিষিদ্ধ জঙ্গি সংগঠনের অংশ শাহাদাত গ্রুপের আরও এক সদস্য হারেজ শেখের খোঁজ মেলে। হারেজ এলাকায় কখনও নিজেকে রাজমিস্ত্রি, কখনও পাইপ লাইন সারানোর মিস্ত্রি আবার কখনও দর্জি বলে পরিচয় দিত। জানা গিয়েছে, টেলিগ্রামের লিংকের মাধ্যমে সে শাহাদাত গ্রুপের সদস্য হয়। তারপরেই দেশবিরোধী নানান কাজকর্ম শুরু করে। টেলিগ্রামের মাধ্যমেই ছড়িয়ে দেওয়া হতো সেই সব কার্যকলাপের নানান ছবি, ভিডিও।

হারেজের বাবা-মায়ের সঠিক পরিচয় পাওয়া যায়নি। হারেজকে গ্রেফতারের পরে এসটিএফ কাঁকসা থানার পুলিশের হাতে তুলে দেয়। মঙ্গলবার কাঁকসা থানার পুলিশ তাকে দুর্গাপুর আদালতে পাঠায়। বিচারক ১৪ দিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেন। হারেজ সেখের সঙ্গে মহম্মদ হাবিবুল্লাহ এর কি রকম যোগ ছিল তা নিয়ে তদন্ত চালাচ্ছেন এসটিএফ কর্তারা। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt