অমৃত বচন: তুমি নিজেই নিজের ভাগ্য রচনা করতে পারো…

অমৃত বচন: তুমি নিজেই নিজের ভাগ্য রচনা করতে পারো…(সংকলক: সন্দীপ সিনহা)

সুখী মানুষ: শ্রীমদ্ভাগবতে বলা হয়েছে, দুই ধরণের মানুষ সুখী ও সব রকম উদ্বেগ থেকে মুক্ত। প্রথমজন নিতান্তই নির্বোধ যার মনুষ্যত্বলাভের সংগ্ৰাম এখনও শুরু হয়নি। দ্বিতীয়জন হলেন তিনি , যিনি আত্মা বা অনন্ত দিব্যস্বরূপকে উপলব্ধি করে পশু ও মানবীয় প্রকৃতির পারে গিয়ে বুদ্ধি ও যুক্তিকে অতিক্রম করে গেছেন।

এই দুই স্তরের মাঝামাঝি অন্যান্য সকলকেই মানসিক সংগ্ৰাম করতে হয় এবং কিছু না কিছু উদ্বেগ ভোগ করতে হয়। এভাবেই বেদান্ত মানুষকে বলছে যে,যা-কিছু যেরকম অবস্থায় আছে তাকে সেভাবেই মেনে নিও না। তুমি তাকে উন্নত থেকে উন্নততর করতে পারো। একটি অবস্থা থেকে আর একটি উন্নত অবস্থায় অগ্ৰসর হতে পারো।

তুমি নিজেই নিজের ভাগ্য রচনা করতে পারো। কোন পশুর পক্ষে এটি করা সম্ভব নয়। সেখানে ভাগ্য রচয়িতা হলো প্রকৃতি। আমাদের ক্ষেত্রে স্বভাব বা প্রকৃতি ভাগ্য নির্ণয় করে না। অমার্জিত মানুষ স্বার্থপর ; ঝগড়া মারামারি কাটাকাটি করতেই ব্যস্ত, বন্যপশু যেমন করে থাকে। এটি অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক পরিস্থিতি, কারণ এসবের মধ্যে দিয়ে মানুষের যথার্থ মহিমা প্রকাশিত হচ্ছে না। আমাদের এই জড়স্বভাব থেকে মুক্ত হতেই হবে। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt