আচমকা পাণ্ডবেশ্বর থানায় ঢুকে গেলেন বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা, তারপর?

দুর্গাপুর দর্পণ, পান্ডবেশ্বর, ১৭ জানুয়ারি ২০২৪: সম্প্রতি পাণ্ডবেশ্বরের বিজেপির আহ্বায়ক রূপক পাঁজা ও বিজেপির পাণ্ডবেশ্বর মন্ডল ১ এর সভাপতি অর্জুন ঘোষের উপরে হামলা হয়। জখম হন তাঁরা। অভিযোগ উঠেছিল দলেরই একাংশের বিরুদ্ধে। দলের আসানসোল সাংগঠনিক জেলার যুব সহ-সভাপতি পলাশ রায় চৌধুরী অভিযোগ করেন, ডালুরবাঁধে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে দুষ্কৃতি হামলা হয়। সেই কার্যালয় দেখতে যান বিজেপির পান্ডবেশ্বরের আহ্বায়ক রূপক পাঁজা সহ তাঁরা।

বিজেপির আসানসোল সাংগঠনিক জেলার যুব সহ-সভাপতি পলাশ রায় চৌধুরী জানান, ডালুরবাঁধে বিজেপির দলীয় কার্যালয়ে দুষ্কৃতী হামলা হয়। সেই কার্যালয় দেখতে যান রূপক পাঁজা সহ তাঁরা। নাম না করে বিজেপি নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারির বিরুদ্ধে অভিযোগ করে তিনি বলেন, তাঁর নেতৃত্বে আসানসোলের বিভিন্ন প্রান্তে নব্য বিজেপির কর্মীদের নিয়ে সনাতনী গোষ্ঠী তৈরি হয়েছে। ওই দলীয় কার্যালয়ের পাশেই নব্য বিজেপির কর্মীরা আদি বিজেপির বিরুদ্ধে চক্রান্ত করার পরিকল্পনা করছিল। বালি, কয়লা, লোহা সহ অবৈধ কারবারে মদত দিতে তোলা আদায়ও চলছে কিছুদিন ধরে। সেই তোলা আদায় করছে ওই বিজেপি নেতার গোষ্ঠীর কর্মীরা। তোলা আদায়ের প্রতিবাদ করায় বৃহস্পতিবার রাতে তাঁদের উপর হামলা চালায় জিতেন্দ্র তিওয়ারির অনুগামীরা।

যদিও এ বিষয়ে মুখ খুলতে চাননি বিজেপি নেতা জিতেন্দ্র তিওয়ারি। তবে দলীয় কোন্দলের কথা উড়িয়ে দেন আসানসোল দক্ষিণের বিজেপি বিধায়ক অগ্নিমিত্রা পাল। বুধবার তিনি হঠাৎ পাণ্ডবেশ্বর থানায় ঢুকে পড়েন। অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতারের দাবি জানান তিনি। অভিযুক্তরা যদি বিজেপির হয়ে থাকে তবু তাদের যেন ছাড়া না হয়। দ্রুত গ্রেফতার না হলে তাঁরা আন্দোলনের পথে হাঁটবেন বলে হুঁশিয়ারি দেন। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!