দুর্গাপুর শহরে জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে মূক-বধির যুবতীকে ধর্ষণ! গ্রেফতার দুই প্রতিবেশী

বিকেলে বাড়ি ফেরার সময় ওই দুই প্রতিবেশী জোর করে তাঁকে সাইকেলে চাপিয়ে এবিএল জঙ্গলে নিয়ে যায়।

——————————————-

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ১৮ ডিসেম্বর ২০২৩: জঙ্গলে নিয়ে গিয়ে মূক-বধির যুবতীকে ধর্ষণের অভিযোগে গ্রেফতার দুই প্রতিবেশী। ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের নিউ টাউনশিপ থানার এবিএল এলাকায়। পুলিশ ধর্ষণের মামলা রুজু করে প্রতিবেশী প্রবীর পাল ও মনোজ মল্লিককে গ্রেফতার করেছে। তাদের বাড়ি কোকওভেন থানার সগড়ভাঙায়।

জানা গিয়েছে, ওই গ্রামেরই মূক-বধির যুবতী অন্যান্য দিনের মতো সগড়ভাঙা বাসস্ট্যান্ড সংলগ্ন একটি বাড়িতে পরিচারিকার কাজে গিয়েছিলেন। পরিবারের লোকজনের অভিযোগ, বিকেলে বাড়ি ফেরার সময় ওই দুই প্রতিবেশী জোর করে তাঁকে সাইকেলে চাপিয়ে এবিএল জঙ্গলে নিয়ে যায়। যুবতীর এক আত্মীয় তা দেখতে পান।

তিনি বাড়িতে গিয়ে খবর দেন। যুবতীর পরিবারের লোকজন এবিএল এর জঙ্গলে গিয়ে দেখেন যুবতীকে টানতে টানতে নিয়ে আসছে। অভিযোগ, সেখানেই তাদের মেয়েকে ধর্ষণ করা হয়েছে। প্রবীরকে সেখানেই ধরে ফেলেন তাঁরা। মনোজ পালিয়ে যায়।নিউ টাউনশিপ থানায় প্রবীর ও মনোজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের মামলা রুজু করা হয়। পুলিশ দু’জনকে গ্রেফতার করে।

পুলিশ যুবতীকে দুর্গাপুর মহকুমা হাসপাতালে ভর্তি করেছে। মহকুমা হাসপাতালে ডেপুটি সুপার সুরূপা ভট্টাচার্য জানান, তিনি চিকিৎসাধীন রয়েছেন। পুলিশের অনুমতি পেলে শারীরিক পরীক্ষা করা হবে। পশ্চিম বর্ধমান জেলা সিপিএমের সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য পঙ্কজ রায় সরকার অভিযোগ তোলেন, এর আগেও ওই জঙ্গলে নির্যাতনের শিকার হয়েছেন একাধিক মহিলা। পুলিশের ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তোলেন তিনি। দুর্গাপুর পুরসভার প্রশাসক বোর্ডের সদস্য দীপঙ্কর লাহা বলেন, রাজ্যে আইন ব্যবস্থা আছে বলেই অপরাধীরা শাস্তি পাচ্ছে। এই ঘটনাতেও অভিযুক্তদের দ্রুত গ্রেফতার করেছে পুলিশ। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt