‘মৎস্যজীবী রেজিস্ট্রেশন’ কার্ডে মিলছে না সুবিধা, আশ্বাস মন্ত্রীর

সেই কার্ড নিয়ে যখন তাঁরা ব্লকে যাচ্ছেন তখন তাঁদের ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ব্যাঙ্কে গেলে ঋণ মিলছে না। 

——————————————-

সনাতন গরাই, দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ৯ ডিসেম্বর ২০২৩: প্রান্তিক এলাকায় মৎস্য চাষে গতি আনতে মৎস্যজীবী রেজিস্ট্রেশন কার্ড দেওয়া শুরু করেছিল রাজ্য সরকার। কথা ছিল এই রেজিস্ট্রেশন কার্ড করালে বিভিন্ন সুবিধা পাবে মৎস্য চাষীরা। অভিযোগ, মৎস্যজীবী রেজিস্ট্রেশন কার্ড করানোর পরেও কোন পরিষেবায় পাননি পশ্চিম বর্ধমান জেলার (Paschim Bardhaman) কাঁকসার চুয়া এলাকার মৎস্যচাষীরা।

তাঁদের অভিযোগ, বছরখানেক আগে এলাকার ৬ জন মৎস্যচাষী ‘মৎস্যজীবী রেজিস্ট্রেশন কার্ডে’র জন্য আবেদন করেন। কিছুদিন পর দুয়ারে সরকার ক্যাম্প থেকে তাঁদের হাতে কার্ড তুলে দেওয়া হয়। এই কার্ড থাকলে সরকারিভাবে মিলবে মাছের চারা, মিলবে ঋণ। 

অভিযোগ, সেই কার্ড নিয়ে যখন তাঁরা ব্লকে যাচ্ছেন তখন তাঁদের ঘুরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। ব্যাঙ্কে গেলে ঋণ মিলছে না। বহু পুকুর পড়ে রয়েছে। মাছের চারার অভাবে থমকে যাচ্ছে মৎস্য চাষ। স্থানীয় বাজারগুলিতে দেখা দিচ্ছে মাছের ঘাটতি। বর্ধমান সদরের বিজেপির সহ সভাপতি রমন শর্মা বলেন, উপভোক্তারা পরিষেবা না পেয়ে পাচ্ছেন শুধু তৃণমূল নেতারা। যদিও রাজ্যের পঞ্চায়েত গ্রামোন্নয়ন ও সমবায় মন্ত্রী প্রদীপ মজুমদার জনান, বিষয়টি তিনি জানলেন। মৎস্যমন্ত্রীর সঙ্গে কথা বলে দ্রুত যাতে সমস্যা মেটে তিনি সে ব্যবস্থা করবেন। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!