মেডিকেলে ভর্তির আন্তঃরাজ্য প্রতারণা চক্রের খোঁজ পেল কাঁকসা পুলিশ

কিন্তু ওই পড়ুয়া যখন মলানদিঘির মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন তখন জানতে পারেন ওই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোন শাখা অফিস নেই লখনউয়ে।

——————————————-

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ২৬ ডিসেম্বর ২০২৩: শ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) কাঁকসার মলানদিঘির বেসরকারি মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভুয়ো শাখা অফিস খুলে প্রতারণার অভিযোগ। কাঁকসা থানার পুলিশের হাতে গ্রেফতার ১। নভেম্বরে অনম হোদা নামের এক ছাত্রী ওই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে এমবিবিএস পড়ার জন্য উত্তরপ্রদেশের লখনউয়ে  ওই ভুয়ো শাখা অফিসে ১৪ লক্ষ ১৪ হাজার টাকা জমা দেন। তাঁকে রসিদও দেওয়া হয়।

কিন্তু ওই পড়ুয়া যখন মলানদিঘির মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আসেন তখন জানতে পারেন ওই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কোন শাখা অফিস নেই লখনউয়ে। তাঁর সঙ্গে প্রতারণা করা হয়েছে। বিষয়টি জানাজানি হতেই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ভাইস প্রেসিডেন্ট পার্থ পবি কাঁকসা থানার পুলিশের কাছে তাঁদের সংস্থার নামে ভুয়ো শাখা অফিস খুলে প্রতারণা চালানোর অভিযোগ দায়ের করেন।

তদন্ত শুরু করে পুলিশ। পুলিশ জানতে পারে, শুধু লখনউ নয়, বিহারের পাটনারও যোগ আছে ওই প্রতারণা চক্রের সঙ্গে। পুলিশ বিহারের দানাপুর থেকে গ্রেফতার করে বিনোদ সিং নামের এক অভিযুক্তকে। তিনদিনের ট্রানজিট রিমান্ডে তাকে নিয়ে আসে কাঁকসা থানার পুলিশ। মঙ্গলবার তাকে দুর্গাপুর আদালতে তোলা হলে বিচারক পুলিশ হেফাজতের নির্দেশ দেন। এই চক্রের সঙ্গে আর কারা যুক্ত, তা জানতে ধৃতকে জেরা করছে পুলিশ। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!