চোখে ‘মাইনাস নাইন’ পাওয়ার, কীভাবে স্বাভাবিক দৃষ্টি ফিরে পেল অরুণিমা?

ছবি: ডাঃ প্রিয়াংশা চ্যাটার্জি

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ২১ জুন ২০২৩: সেই দশ বছর বয়স থেকে অরুণিমা রায়ের চোখে মোটা পুরু কাচের চশমা। কারণ, তার পাওয়ার মাইনাস নাইন। এমন চশমা ছাড়া সে দেখতেই পায় না। কিন্তু ২৫ বছর বয়সে এসে অরুণিমা সিদ্ধান্ত নেয়, আর পারা যাচ্ছে না। এবার চশমাকে বাই বাই করতে হবে। আর পাঁচজনের মতো স্বাভাবিক জীবন কাটাতে চায় সে।

অরুণিমার বাড়ি বর্ধমান। দুর্গাপুরে একটি বহুজাতিক সংস্থায় চাকরি করে অরুণিমা। বছর দু’য়েক ধরে সে চোখ নিয়ে খোঁজ খবর চালিয়ে গিয়েছে। সে জানতে পেরেছে তাকে LASIK/  IPCL surgery করাতে হবে যার খরচ অনেক। তাই গত এক বছর ধরে সে তার মাইনে খরচ না করে জমিয়ে রেখেছে। কিন্তু কেথায় অস্ত্রোপচার করবে সেটা নিয়ে দোটানায় ছিল অরুণিমা।

এক আত্মীয় কিছুদিন আগে দুর্গাপুরের Dvita Eye Care থেকে বিশেষজ্ঞ সার্জেন প্রিয়াংশা চ্যাটার্জির (Dr. Priyansha Chatterjee) কাছে চোখের অস্ত্রোপচার করিয়ে সম্পূর্ণ সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তাঁর সঙ্গে কথা বলে অরুণিমা ঠিক করে ফেলে, সেও Dvita Eye Care এ গিয়ে সার্জেন প্রিয়াংশা চ্যাটার্জির কাছে চোখের IPCL surgery করাবে। তিনি হাসপাতালে গিয়ে ডাঃ প্রিয়াংশার সঙ্গে যোগাযোগ করেন এবং অস্ত্রোপচারের সিদ্ধান্ত চূড়ান্ত হয়।

অরুণিমা জানান, অত্যন্ত ব্যয়বহুল এই অস্ত্রোপচার যাতে তাঁর উপরে চাপ তৈরি করতে না পারে সেজন্য হাসপাতালের তরফে তাঁর জন্য একটি সুবিধাজনক পরিকল্পনা তৈরি করে দেওয়া হয়। তাকে অস্ত্রোপচারের জন্য প্রস্তুত করা হয়। মাত্র ১০ মিনিটেই তাঁর  সফল IPCL surgery সম্পন্ন করেন ডাঃ প্রিয়াংশা। অস্ত্রোপচারের একঘন্টা পরে দেখা যায়, অরুণিমা চশমা ছাড়াই দারুণ দেখতে পাচ্ছে।

সপ্তাহখানেক পরে তাকে চেক আপের জন্য ফের আনা হয় হাসপাতালে। ততদিনে তাঁর দৃষ্টিশক্তি প্রায় আর পাঁচজনের মতোই স্বাভাবিক হয়ে গিয়েছে। চশমা পরেও এত ভালো আগে কখনও দেখতে পেতেন না বলে জানান অরুণিমা। ডাঃ প্রিয়াংশা বলেন, ‘‘এটা খুব সাধারণ বিষয়। যখন আমরা পুরু কাচের চশমা পরি, তখন আমাদের দৃষ্টিশক্তিকে আপোষ করতে হয়। আমরা যতই মনে করি, চশমা পরে খুব ভালো দেখছি, কিন্তু স্বাভাবিক দৃষ্টিশক্তির একজনের মতো কখনই নিঁখুত দেখতে পাই না। কিন্তু অস্ত্রোপচারের পরে অরুণিমা পার্থক্যটা স্পষ্ট বুঝতে পারছেন।’’

প্রসঙ্গত, Dvita Eye Care এর একজন অত্যন্ত অভিজ্ঞ সার্জেন হিসাবে ইতিমধ্যেই নাম কুড়িয়েছেন ডাঃ প্রিয়াংশা। বহু চোখের রোগী তাঁর হাত দিয়ে দৃষ্টি ফিরে পেয়েছেন। ডাঃ প্রিয়াংশা এর আগে ব্যাঙ্গালুরুর নারায়ণা নেত্রালয়া এবং মুম্বইয়ের সেন্টার ফর সাইট থেকে প্রশিক্ষণ নিয়ে এসেছেন। তিনি একজন অত্যন্ত অভিজ্ঞ সার্জেন।

 

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt