পিতৃত্বের পরিচয় দিতে নারাজ! গৃহকর্তার বাড়ির সামনে সদ্যোজাতকে রেখে গেলেন পরিচারিকা

দুর্গাপুর দর্পণ ডেস্ক, ২০ ডিসেম্বর ২০২৩: পিতৃত্বের পরিচয় দিতে রাজি নন গৃহকর্তা! তাঁর বাড়ির সামনে সদ্যোজাতকে রেখে দিয়ে গেলেন পরিচারিকা। যা নিয়ে ব্যাপক চর্চা শুরু হয়েছে মালদহের হরিশ্চন্দ্রপুরের বিতোল গ্রামে। গৃহকর্তা অবসরপ্রাপ্ত সরকারি কর্মী। তাঁর বাড়ির সামনে সদ্যোজাত কন্যাসন্তানকে রেখে গিয়েছেন ওই মহিলা।

থানায় লিখিতি অভিযোগ দায়ের করেছেন পরিচারিকা। সদ্যোজাতকে উদ্ধার করে হরিশ্চন্দ্রপুর হাসপাতালে ভর্তি করেছে পুলিশ। গৃহকর্তা পলাতক। জানা গিয়েছে, মহিলার স্বামী বছর দু’য়েক ভিনরাজ্যে কর্মরত রয়েছেন। দুই মেয়ে ও এক ছেলেকে নিয়ে থাকেন মহিলা। পরিচারিকার কাজ করেন অবসরপ্রাপ্ত পঞ্চায়েত কর্মী তৈমুর রহমানের বাড়িতে।

অভিযোগ, তৈমুরের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে মহিলার। গর্ভবতী হয়ে পড়েন তিনি। কিন্তু তৈমুর মহিলাকে বিয়ে করতে রাজি হননি। উল্টে তাঁর গর্ভপাত করানোর চেষ্টা হয়। মহিলা কোনওমতে পালিয়ে আসেন। কিছুদিন পরে তিনি কন্যাসন্তানের জন্ম দেন। এবার পিতৃত্বের স্বীকৃতির জন্য তিনি তৈমুরকে অনুরোধ করেন। কিন্তু লাভ হয়নি। তাই বুধবার তিনি তাঁর কন্যাসন্তানকে তৈমুরের বাড়ির সামনে রেখে দিয়ে চলে যান। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!