দুয়ারে সরকারের পাল্টা দুর্গাপুরে বিজেপির ‘বিকশিত ভারত’

এই শিবিরে উজ্জ্বলা যোজনা, মুদ্রা লোন, প্রধানমন্ত্রী জীবন বীমা যোজনা, প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি যোজনা সহ বিভিন্ন কেন্দ্রীয় প্রকল্পের আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে।

——————————————-

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ১০ জানুয়ারি ২০২৪: পশ্চিম বর্ধমান জেলার (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরে দুয়ারে সরকারের পাল্টা ‘বিকশিত ভারত’ নিয়ে হাজির হয়েছে বিজেপি। লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে নয়া কর্মসূচির সূচনা। তবে তৃণমূলের হুঁশিয়ারি, একশো দিনের বকেয়া টাকা না মেটালে এই কর্মসূচির সঙ্গে যুক্ত কর্মীদের ঘেরাও করা হবে।

সমস্ত কেন্দ্রীয় প্রকল্পের সুবিধা মানুষের দোরগোড়ায় পৌঁছে দেওয়ার লক্ষ্যে বিজেপি শুরু করেছে ‘বিকশিত ভারত’ শিবির। রাজ্যে প্রথম দুর্গাপুরের ইস্পাত পল্লীতে এই প্রকল্পের সূচনা করলেন বর্ধমান-দুর্গাপুরের বিজেপি সাংসদ সুরিন্দর সিং আলুওয়ালিয়া। তিনি বলেন, এই শিবিরে উজ্জ্বলা যোজনা, মুদ্রা লোন, প্রধানমন্ত্রী জীবন বীমা যোজনা, প্রধানমন্ত্রী স্বনিধি যোজনা সহ বিভিন্ন কেন্দ্রীয় প্রকল্পের আবেদন গ্রহণ করা হচ্ছে। শিবির থেকেই অনেক আবেদনকারী ঋণ পাচ্ছেন। শুধু শিবিরের মাধ্যমেই নয়, ভ্রাম্যমান গাড়িও পৌঁছে যাবে প্রান্তিক এলাকায়।

বিজেপি সাংসদ আরও বলেন, লক্ষ্য একটাই। কেন্দ্রীয় প্রকল্প মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছে দেওয়া। যদি তৃণমূলের কর্মীরা বাধা দেয়? সাংসদ বলেন, বাধা কেন দেবে, ভালো কাজে কেন বাধা দেবে। যদি দেয় তাহলে বুঝতে পারবে। তৃণমূলের জেলা সহ সভাপতি উত্তম মুখোপাধ্যায় বলেন, আমাদের দুয়ারে সরকার প্রকল্পকে কপি করে নতুন নাম দিয়ে পেস্ট করে লোকসভা নির্বাচনের প্রাক্কালে মানুষের কাছে পৌঁছানোর চেষ্টা করছে বিজেপি। একশো দিনের কাজের টাকা মানুষ না পেলে ‘বিকশিত ভারত’ প্রকল্পের কর্মীদের ঘেরাও করে রেখে বিক্ষোভে নামবে। সিপিএমের সম্পাদক মন্ডলীর সদস্য পঙ্কজ রায় সরকার বলেন, প্রকল্প অনেক আসে। কিন্তু আদতে সুবিধা পায় না কেউই। উজ্জ্বলা যোজনার গ্যাসের সংযোগ অনেকে পেয়েছে। কিন্তু গ্যাসের বিপুল দাম বাড়ায় পড়ে আছে সিলিন্ডার। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!