৫৬ তম Engineers’ Day পালন করল BCREC এর সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পড়ুয়ারা

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০২৩: পশ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের Dr. B. C. Roy Engineering College (BCREC) এ ৫৬ তম Engineers’ Day পালিত হল ব্যাপক উৎসাহের সঙ্গে। সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পড়ুয়ারা Institution of Engineers (India) Durgapur Local Centre এবং Institution’s Innovation Council এর দুর্গাপুর শাখার সহযোগিতায় ডঃ মোক্ষগুন্ডা বিশ্বেশ্বরায়াকে জন্মদিনের শ্রদ্ধা জানিয়ে পালন করা হয় দিনটি। উপস্থিত ছিলেন SAIL এর প্রাক্তন জিএম (মিলস) ধ্রুব ব্যানার্জি, সেলের রাঁচির Management Training Institute এর প্রাক্তন চিফ জেনারেল ম্যানেজার পরশুরাম সাউ, BCREC এর অধ্যক্ষ ডঃ সঞ্জয় এস পাওয়ার, সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিভাগীয় প্রধান ডঃ সঞ্জয় সেনগুপ্ত, Institute Innovation Council এর কনভেনর তথা BCREC এর কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের বিভাগীয় প্রধান ডঃ অরিন্দম ঘোষ, IEI Students’ Chapter এর কো-অর্ডিনেটর তথা কম্পিউটার সায়েন্স অ্যান্ড ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের সহকারী অধ্যাপক বাপ্পাদিত্য দাস।ডঃ সঞ্জয় এস পাওয়ার এবং ডঃ সঞ্জয় সেনগুপ্ত অতিথি অভ্যাগতদের স্বাগত জানান। ডঃ সঞ্জয় এস পাওয়ার তাঁর উদ্বোধনী বক্তব্যে দিনটির তাৎপর্য ব্যাখ্যা করেন। তিনি বলেন, ‘‘সমাজকে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া একজন ইঞ্জিনিয়ারের দায়িত্ব। এটা এমন এক পেশা যাতে নিরন্তর শিখে যেতে হয় এবং অনাগত ভবিষ্যৎতের কথা ভেবে নিজেকে তৈরি করতে হয়। একজন ইঞ্জিনিয়ারের পেশাদারি জীবনে ইঞ্জিনিয়ারিং এডুকেশন বলে কোনও ব্যবস্থা নেই। বিভিন্ন কাজের মাধ্যমে অভিজ্ঞতা অর্জন করে তাঁকে এগিয়ে যেতে হয়। ধ্রুব ব্যানার্জি বলেন, ‘‘একজন ইঞ্জিনিয়ার আসলে হলেন একজন উদ্ভাবক। অন্যদিকে তিনি নিত্য নতুন সমস্যার সুরাহা করে দেশ ও পৃথিবীকে সঠিক দিকে এগিয়ে নিয়ে যান। পরিবেশের উপর যাতে নেতিবাচক প্রভাব না পড়ে সে কথা ভেবে ইঞ্জিনিয়ারদের সচেতনভাবে কাজ করতে হবে। পরশুরাম সাউ পড়ুয়াদের এন্টারপ্রেনর হওয়ার মানসিকতা তৈরি করার আহ্বান জানান। ডঃ সঞ্জয় সেনগুপ্ত প্রাকৃতিক দুর্বিপাকের ফলে যেভাবে পরিকাঠামোর ক্ষয়ক্ষতি হচ্ছে সেকথা মাথায় রেখে জীবন ও সম্পত্তি হানি এড়াতে উপযুক্ত উদ্ভাবনী ডিজাইন তৈরি করার পরামর্শ দেন পডুয়াদের।

আরও পড়ুন- শিক্ষক দিবসে “সেরা শিক্ষক” পুরস্কার চালু করল BCREC

সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিংয়ের পড়ুয়ারা এদিন মডেল ও পোস্টার প্রতিযোগিতার আয়োজন করেছিলেন। দুটি বিভাগে দুটি করে টিম জয়লাভ করে। তাদের পুরস্কার প্রদান করা হয়। পোস্টার প্রতিযোগিতায় তিনটি টিম বিশেষ স্বীকৃতি পুরস্কার লাভ করে। মডেল প্রতিযোগিতায় নবজ্যোতি হালদার প্রথম এবং সাদিক কবীর, সৌমী দাস এবং অর্চিস্মিতা দাস দ্বিতীয় পুরস্কার লাভ করেন। অন্যদিকে, পোস্টার প্রতিযোগিতায় যুগ্মভাবে প্রথম পুরস্কার পান আয়ুষ আনন্দ ও সৌভিক মন্ডল। দ্বিতীয় পুরস্কার লাভ করেন অরুণিমা পুরকায়েত এবং সুর্যতপা কোনার। বিশেষ স্বীকৃতি পুরস্কার পান মহম্মদ ইজাজুল্লা এবং সংগ্রামজিৎ বক্সি, কাইফ আলি খান ও সাকেত কুমার, জয়দীপ মন্ডল এবং মানস সাহা। দিনটি উপলক্ষে আইআইটি রুরকিতে অবস্থিত Indian Society of Earthquake Technology এর পড়়ুয়ারা অন্য একটি অনুষ্ঠানের আয়োজন করেন। BCREC এর সিভিল ইঞ্জিনিয়ারিং এর বিভাগীয় প্রধান তথা IQAC Coordinator ডঃ সঞ্জয় সেনগুপ্ত বক্তব্য রাখেন। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!
mission hospital advt