Durgapur: জনধন যোজনার পাস বই, এটিএম পড়ে রয়েছে মাঠে! চরম চাঞ্চল্য শিল্পাঞ্চলে

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কোকওভেন থানার পুলিশ। পুলিশ বস্তায় ভরে নিয়ে যায় সেই সব পাস বই ও এটিএম কার্ডগুলি। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। 

——————————————-

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ১০ ফেব্রুয়ারি ২০২৪: শনিবার পশ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের কোকওভেন থানার সগড়ভাঙা এলাকার কে ব্লক হাউসিং এর মাঠে পাওয়া গেল বহু প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার পাস বই, এটিএম কার্ড! এত পাস বই ও এটিএম কার্ড পড়ে থাকতে দেখে চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকার বাসিন্দাদের মধ্যে। জানাজানি হতেই এলাকাবাসীর ভিড় জমে যায়।

স্থানীয়দের প্রশ্ন, কোথা থেকে এল প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার এত পাস বই? এলাকাবাসী বিকাশ ঘটক ঘটক জানান, তিনি বাজারে যাচ্ছিলেন। তখনই মাঠের পাশে প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনার পাস বই আর এটিএম কার্ডগুলি পড়ে থাকতে দেখেন। এলাকার বাসিন্দাদের বিষয়টি জানান। তাঁরা দেখেন এই পাস বইগুলি বিধাননগর, সগড়ভাঙা কলোনি আর গোপীনাথপুর এলাকার। বইগুলি আপডেটও করা আছে। আবার এটিএম কার্ড গুলির মেয়াদ ২০২৪ পর্যন্ত রয়েছে।

বিজেপির আসানসোল সাংগঠনিক জেলার সহ-সভাপতি চন্দ্রশেখর বন্দ্যোপাধ্যায়ের অভিযোগ, প্রধানমন্ত্রী জনধন যোজনায় সাধারণ মানুষ অ্যাকাউন্ট খুলেছিল। সেই সব পাস বই তাঁদের কাছে পৌঁছায়নি। রাজ্যের সব দফতরে দুর্নীতি চলছে। সাধারণ মানুষের অ্যাকাউন্টে দুর্নীতির টাকা সরিয়ে রাখার চক্রান্ত হয়েছিল বলে মনে হচ্ছে।

পাল্টা বিজেপিকে কটাক্ষ করে দুর্গাপুরের ৩ নম্বর ব্লকের তৃণমূলের সহ-সভাপতি আশীষ কেস বলেন, “মাঠের পাশে পাস বই আর এটিএম কার্ড পড়ে আছে। এলাকার মানুষ খবর পাওয়ার আগেই বিজেপির নেতারা খবর পেয়ে যাচ্ছেন। এই পাস বই আর এটিএম কার্ড পড়ে থাকার পিছনে বিজেপির যোগসাজস আছে। সামনে লোকসভা নির্বাচন। সেই জন্যই মানুষকে বিভ্রান্ত করার চেষ্টা করছে।’’

খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় কোকওভেন থানার পুলিশ। পুলিশ বস্তায় ভরে নিয়ে যায় সেই সব পাস বই ও এটিএম কার্ডগুলি। তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। যদিও ব্যাঙ্ক সূত্র খবর, এই সব পাস বই ও এটিএম কার্ডগুলি বাতিল এবং অনেক গ্রাহককে তাঁদের ঠিকানায় খুঁজেই পাওয়া যায়নি। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!