রাজেন্দ্র একাডেমিতে নেতাজির ১২৭ তম জন্মবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে নানা অনুষ্ঠান

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ২৩ জানুয়ারি ২০২৪: ‘‘তোমরা আমাকে রক্ত দাও, আমি তোমাদের স্বাধীনতা দেবো’’।ব্রিটিশদের সমস্ত চক্রান্তকে পরাস্ত করে নেতাজি সুভাষচন্দ্র বসুর কণ্ঠে শোনা গিয়েছিল এই মহান বাণী। ১৯৪৩ সালে রাসবিহারী বসুর অনুরাধে নেতাজি ডুবো জাহাজে করে জার্মানি থেকে জাপানে যান। আজাদ হিন্দ বাহিনীর দক্ষিণ পূর্ব এশিয়ায় সশস্ত্র সংগ্রাম পরিচালনার পূর্ণ দায়িত্ব নেন। 

আজাদ হিন্দ বাহিনীর সৈন্যরাই তাঁকে নেতাজি আখ্যায় ভূষিত করেন। নেতাজি ‘দিল্লি চলো’-র ডাক দেন। নেতাজির নেতৃত্বে আজাদ হিন্দ বাহিনী ১৯৪৩ সালে ইংরেজের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করে। দেশের স্বাধীনতা সংগ্রামে নেতাজি ও তাঁর আজাদ হিন্দ বাহিনীর অবদান স্বর্ণাক্ষরে লেখা আছে। নেতাজির জন্মদিন উপলক্ষে ২৩ জানুয়ারি সারা দেশে পরাক্রম দিবস হিসেবে পালন করা হয়ে থাকে।

পশ্চিম বর্ধমান জেলার (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের গোপালপুরের রাজেন্দ্র একাডেমি প্রাঙ্গণেও মঙ্গলবার পূর্ণ মর্যাদা সহকারে নেতাজির জন্মদিন উদযাপন করা হয়। প্রদীপ প্রজ্জ্বলন ও নেতাজির প্রতিকৃতিতে মালা ও পুষ্পার্ঘ্য প্রদান করা হয়। গান, আবৃত্তির মাধ্যমে নেতাজিকে শ্রদ্ধা জানানো হয়। নেতাজির জীবন ও আদর্শের উপর একটি কুইজ প্রতিযোগিতারও আয়োজন করা হয়েছিল। প্রতিষ্ঠানের কর্নধার জয়ন্ত কুমার চক্রবর্তী তাঁর বক্তব্যে নেতাজির জীবনী, দেশকে স্বাধীন করার জন্য তাঁর ত্যাগ, তিতিক্ষা ও সংগ্রামের কথা তুলে ধরে তাঁর আদর্শকে পাথেয় করে এগিয়ে চলার পরামর্শ দেন পড়ুয়াদের। (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!