Breaking: আইন ভেঙে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভিতরে সদলবলে তৃণমূল নেত্রী

দুর্গাপুর দর্পণ, কাঁকসা, ২ ফেব্রুয়ারি ২০২৪: আইন ভেঙে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভিতরে ঢুকে শুভেচ্ছা অভিযোগ তৃণমূল কর্মীদের বিরুদ্ধে।পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেতর ঢুকে পেন দিয়ে বিতর্কের মুখে পশ্চিম বর্ধমান (Paschim Bardhaman) মহিলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক, পঞ্চায়েত প্রধান সহ তৃণমূল কর্মীরা। সমালোচনায় সরব বিরোধীরা।

পশ্চিম বর্ধমান জেলার কাঁকসা উচ্চ বিদ্যালয়ে মাধ্যমিক পরীক্ষার্থীদের পেন দিয়ে শুভেচ্ছা বার্তা জানাতে পরীক্ষা কেন্দ্রের বাউন্ডারির ভেতর তৃণমূল কর্মীদের সঙ্গে নিয়ে ঢুকে যান জেলার মহিলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক স্বপ্না বৈদ্য ও কাঁকসা গ্রাম পঞ্চায়েতের প্রধান সুমনা সাহা। এই ঘটনাকে ঘিরেই শুরু হয়েছে বিতর্ক। বিজেপি নেতা ইন্দ্রজিৎ ঢালী বলেন, “পরীক্ষা কেন্দ্রের বাউন্ডারির ভেতর ঢুকে পরীক্ষার্থীদের শুভেচ্ছা জানাতে যাচ্ছে পরীক্ষার্থীদের প্রভাবিত করার জন্য। যদি শুভেচ্ছা জানাতেই হয় তাহলে ঘরে গিয়ে করুক না।” সিপিএম নেতা পঙ্কজ রায় সরকার বলেন, “সারা বছর বিতরণ করছে, তাতেও হচ্ছে না! পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেতর ঢুকে যাচ্ছে মহিলা তৃণমূল কর্মীরা। পুলিশ ও বিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ কি করছিল? সাধারণ লোক কি পরীক্ষা কেন্দ্রে ঢুকতে পারবে? কিন্তু তৃণমূলের নেতারা কী করে ঢুকে যাচ্ছে পরীক্ষা কেন্দ্রের ভেতর?”

যদিও জেলা মহিলা তৃণমূলের সাধারণ সম্পাদক স্বপ্না বৈদ্য বলেন, “তৃণমূল সবসময় মানুষের কাজ করে থাকে। পরীক্ষার্থীদের যাতে কোন সমস্যা না হয় এবং তারা যাতে সুষ্ঠভাবে পরীক্ষা দিতে পারে সেইজন্য শুভেচ্ছা জানিয়েছি।বিরোধীরা ভালো কাজ কিছু করে না শুধু বিতর্কে খুঁজে বেড়ায়।” কাঁকসা উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক উজ্জ্বল নন্দী বলেন, “আমরা পরীক্ষার্থীদের পরীক্ষা কেন্দ্রে বসানোর কাজে ব্যস্ত ছিলাম। তবে যারা ঢুকেছিলেন তাঁদের সচেতন হওয়া দরকার।”

Leave a Comment

error: Content is protected !!