মুম্বাইয়ে সোনা চুরির অভিযোগে কাঁকসার শ্বশুরবাড়ি থেকে গ্রেফতার মেদিনীপুরের যুবক

দুর্গাপুর দর্পণ, দুর্গাপুর, ৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪: কয়েক বছর ধরে মুম্বইয়ের লোকমান্য তিলক থানা এলাকার একটি সোনার দোকানে কাজ করতেন পশ্চিম মেদিনীপুরের কেশপুরের যুবক অমিত চৌধুরী। ১৭ জানুয়ারি দোকান থেকে ১৫০গ্রাম সোনা উধাও হয়ে যায়। খোঁজ ছিল না অমিতেরও। ১৮ জানুয়ারি দোকানের মালিক লোকমান্য ত্রিলোক থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

তদন্ত শুরু করে মুম্বই পুলিশ। অমিত মুম্বই থেকে এই রাজ্যে ফিরে এলেও মেদিনীপুরে নিজের বাড়িতে না গিয়ে পশ্চিম বর্ধমানের (Paschim Bardhaman) দুর্গাপুরের কাঁকসার গোপালপুরের শ্বশুরবাড়িতে এসে ওঠে। মোবাইল টাওয়ারের লোকেশন ট্রাক করে মুম্বই পুলিশ বুধবার রাতে কাঁকসা পুলিশকে সঙ্গে নিয়ে গোপালপুর উত্তরপাড়ায় অমিতের শ্বশুরবাড়িতে হানা দেয়।

গ্রেফতার করা হয় অভিযুক্ত অমিত চৌধুরীকে। দুর্গাপুর আদালতের মাধ্যমে ট্রানজিট রিমান্ডে তাকে মুম্বই নিয়ে যায় পুলিশ। যদিও অভিযুক্ত অমিত দাবি করেন, কয়েক মাস ধরে মজুরি না পেয়ে বন্ধুর পরামর্শে এই চুরি করেছেন। বন্ধুই তাঁকে ফাঁসিয়ে দিয়েছে। মুম্বই পুলিশের আধিকারিক সুশী কুমার ভাঞ্জারি বলেন, “চুরি করে পালিয়েছিল অভিযুক্ত। অভিযোগ পেয়ে তদন্তের ভিত্তিতে গোপালপুর থেকে গ্রেফতার করা হয় অমিতকে। এই ঘটনার পিছনে আর কোনও কারণ রয়েছে কিনা তা তদন্ত করে দেখবে পুলিশ।’’ (বিশেষ বিশেষ ভিডিও দেখতে DURGAPUR DARPAN ইউটিউব চ্যানেলটিও সাবস্ক্রাইব করুন)।

Leave a Comment

error: Content is protected !!